• আগস্ট ১০, ২০২২
  • জাতীয়
  • 355
এবার খোলাবাজারে ডলার ছুঁল ১২০ টাকা

নিউজ ডেস্কঃ পাগলা ঘোড়ার মতোই ছুটছে ডলার। নানা পদক্ষেপেও নিয়মিত দামি হচ্ছে এই বৈদেশিক মুদ্রা, সেই সঙ্গে পড়ছে টাকার মান।একদিনের ব্যবধানে খোলাবাজারে ডলারের দাম ৫ টাকা বেড়ে ১২০ টাকা হয়েছে।

এ দামেও আশানুরূপ ডলার মিলছে না। এর আগে কখনও একদিনে ডলারের দর এত বেড়ে এ পর্যায়ে উঠেনি।

সোমবার ডলার ১১৫ টাকা ৬০ পয়সায় বিক্রি হয়। এর আগে গত ২৭ জুলাই খোলাবাজারে ডলারের দর উঠেছিল ১১২ টাকা। বুধবার খোলাবাজারে প্রতি ডলার ১২০ টাকায় পৌঁছায়।

সংশ্লিষ্টরা জানান, খোলাবাজার থেকে যে কেউ ডলার কিনতে পারেন। ব্যাংক থেকে কিনতে পাসপোর্ট এনডোর্সমেন্ট করতে হয়। যে কারণে অনেকে এখন খোলাবাজার থেকে ডলার কিনে শেয়ারবাজারের মতো বিনিয়োগ করছেন, যা অবৈধ।

খোলাবাজার বা কার্ব মার্কেটের ব্যবসায়ীরা বলছেন, খোলাবাজারে তীব্র সংকট রয়েছে ডলারের। ব্যাংকের মতো খোলাবাজারেও ডলারের সংকট দেখা দিয়েছে। প্রবাসীদের দেশে আসা কমেছে, বিদেশি পর্যটকরাও কম আসছেন। এ কারণে ডলারের সরবরাহ কম।

খোলাবাজারের সঙ্গে ব্যাংকের আমদানি, রপ্তানি ও রেমিট্যান্সেও ডলারের দর অনেক বেড়েছে।

দিলকুশা দোহার মানি এক্সচেঞ্জে ডলার কিনতে আসা এক ক্রেতা বলেন, ‘প্রতি ডলার ১২০ টাকা চাচ্ছে। ব্যাংকরেট ৯৫ টাকা বললে প্রতিষ্ঠানটি বলে, ওসব বলে লাভ নেই। আমাদের যে রেটে দিতে পারব সেটা বলেছি। এতে সাধারণ জনগণ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। প্রয়োজনীয় ডলার পাওয়া যাচ্ছে না। ব্যাংকে গিয়েও ডলার পাওয়া যাচ্ছে না। ব্যাংকগুলো বলছে ডলার নেই।’

যুক্তরাষ্ট্রের মুদ্রা ডলারের বিপরীতে টাকার মান বেশ কিছুদিন ধরেই টানা কমছে। সোমবার আন্তব্যাংক মুদ্রাবাজারে বাংলাদেশি মুদ্রা টাকার বিপরীতে ডলারের দর আরও ৩০ পয়সা কমে প্রতি ডলার ৯৫ টাকা টাকায় বিক্রি হয়েছে। অর্থাৎ বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছ থেকে ব্যাংকগুলো এই দরে ডলার কিনেছে।