• আগস্ট ২১, ২০২২
  • শীর্ষ খবর
  • 202
সুরমায় নিখোঁজের দুই দিন পর ভেসে উঠল যুবকের লাশ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলায় সুরমা নদীতে বাল্কহেডের ধাক্কায় খেয়ানৌকা থেকে পড়ে নিখোঁজের দুই দিন মো. শামসুল হকের (৩৩) লাশ আজ রোববার ভেসে উঠেছে। গত শুক্রবার রাতে নদী পারাপার হতে গিয়ে এ ঘটনা ঘটে।

শামসুল হকের বাড়ি সদর উপজেলার লক্ষ্মণশ্রী ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামে। তিনি বন্ধুদের সঙ্গে দোয়ারাবাজার উপজেলার সীমান্তবর্তী বাঁশতলা এলাকায় বেড়াতে গিয়েছিলেন। সিলেটের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন শামসুল। তাঁর স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়ে আছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, শামসুলসহ তাঁর এলাকার ৩৪ যুবক মোটরসাইকেলে করে শুক্রবার বেড়াতে যান দোয়ারাবাজার উপজেলার সীমান্তবর্তী বাঁশতলা এলাকায়। ফেরার পথে সুরমা নদীর দোয়ারাবাজার-আজমপুর ঘাট পার হতে গিয়ে এ ঘটনা ঘটে।

শামসুল হকসহ তিনজন একটি মোটরসাইকেলে ছিলেন। রাত আটটার দিকে তাঁরা নদী পার হওয়ার সময় বালুবোঝাই বাল্কহেডের ধাক্কায় খেয়ানৌকা থেকে পড়ে যান শামসুল। পরে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন খোঁজ করেও তাঁর সন্ধান পাননি। আজ সকালে নদীতে তাঁর লাশ ভেসে ওঠে।

দোয়ারাবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেবদুলাল ধর বলেন, শামসুলের লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। পরে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।