• সেপ্টেম্বর ৮, ২০২২
  • জাতীয়
  • 182
শাওনের স্মরণে যুবদলের শোক সমাবেশে পুলিশের বাধা

নিউজ ডেস্কঃ পুলিশের গুলিতে নিহত শাওন হত্যার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে লক্ষ্মীপুরে জেলা যুবদলের শোক সমাবেশ পুলিশ বাধা দিয়েছে।

জেলা যুবদলের উদ্যোগে শহরের গোহাটা রোডস্থ শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানির বাসভবনের সামনে থেকে বৃহস্পতিবার সকালে একটি শোক সমাবেশ বের করে জেলা যুবদল।

জেলা যুবদলের আহ্বায়ক রেজাউল করিম অভিযোগ করে বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ শোক সমাবেশ বের করলে পুলিশ বাধা দেয়। এতে র‌্যালিটি বাজারের দিকে না গিয়ে শহীদ উদ্দীন চৌধুরীর বাসভবনের সামনে গিয়ে সমাবেশ করে। বিনা উসকানিতে পুলিশ যুবদলের কর্মসূচিতে বাধা দেয়। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

এ সময় কেন্দ্রীয় বিএনপির প্রচার সম্পাদক ও জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও সাবেক এমপি শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি বলেন, ‘বিনা উসকানিতে পুলিশ বিএনপির কর্মসূচিতে বাধা দিচ্ছে। পুলিশ দিয়ে হত্যা করে, গুম করে এই আন্দোলন থামানো যাবে না, আজ প্রশাসনের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে যুবদল শোক সমাবেশ ও কালো পতাকা মিছিল করেছে।

‘আন্দোলন করতে হিম্মত লাগে, হেডম লাগে, আমরা কোনো রক্তচক্ষুকে ভয় পাই না, এই লক্ষ্মীপুরের মানুষ কোনো অন্যায়-অত্যাচারের কাছে মাথানত করে না।’

সব নেতা-কর্মী আন্দোলন সংগ্রামের জন্য প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানান তিনি।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তফা কামাল বলেন, ‘যুবদল শোক সমাবেশের কোনো অনুমতি নেয়নি, বরং বিশৃঙ্খলার উদ্দেশ্যে বাজারের দিকে মিছিল নিয়ে যাচ্ছিলেন। এতে পুলিশ মিছিলে বাধা দেয়। শোকর‌্যালি করতে দেয়নি। আইনশৃঙ্খলায় বিঘ্ন ঘটানোর চেষ্টা করলে কঠোর হাতে দমন করা হবে।’

শোক সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবদলের আহ্বায়ক রেজাউল করিম লিটন, সদস্যসচিব আব্দুল আলীম হুমায়ুন, জেলা স্বেচ্চাসেবক দলের সভাপতি মহসিন কবির স্বপন, সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ হারুন, জেলা কৃষকদলের সভাপতি মাহবুবুল আলম মামুন, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি হাসান মাহমুদ ইব্রাহিম, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুনসহ অনেকে।

একই দিন দ্রব্যমূল্যে ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে রামগতি ও রায়পুরে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন বিএনপির নেতা-কর্মীরা। রায়পুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম হাওলাদারের বাসভবনের সামনে এ সমাবেশ করেন বিএনপির নেতারা।

এ সময় বক্তব্য দেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সাবেক এমপি আবুল খায়ের ভূঁইয়া।

এ ছাড়া একই দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন রামগতি উপজেলা বিএনপি নেতা-কর্মীরা। রামগতির রামদয়াল বাজার এলাকায় এ বিক্ষোভ সমাবেশ হয়।

এ সময় বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা ও সাবেক এমপি আশরাফ উদ্দিন নিজান। সমাবেশে জেলা, উপজেলা বিএনপি, যুবদল, কৃষকদল, ছাত্রদল, শ্রমিকদলসহ অঙ্গসংগঠনের বিপুলসংখ্যক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপির ৪৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পূর্বঘোষিত সমাবেশে যোগ দিতে সকাল থেকে বঙ্গবন্ধু সড়কের ২ নম্বর রেলগেট এলাকার চুনকা পাঠাগারের সামনে জড়ো হতে থাকেন মহানগর বিএনপিসহ এর অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মিছিল বের করতে গেলে বাধার মুখে পড়েন তারা।

কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে পুলিশ তাদের লাঠিপেটা করলে শুরু হয় ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া। পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকেন নেতা-কর্মীরা। এ সময় পুলিশবক্স ভাঙচুর করা হয়।

পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল ছোড়ে। এতে যুবদলকর্মী শাওন বিদ্ধ হন। হাসপাতালে নেয়ার আগেই তার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।