• সেপ্টেম্বর ১০, ২০২২
  • লিড নিউস
  • 230
‘দেশে মানুষের ভোটের অধিকার নেই’, সিলেটে বিএনপির শীর্ষ নেতৃবৃন্দ

নিউজ ডেস্কঃ বিএনপির শীর্ষ নেতৃবৃন্দ বলেছেন- বাংলাদেশে আজ মানুষের ভোটের অধিকার নেই। ভোট ডাকাতির সরকার এ অধিকার কেড়ে নিয়েছে। আন্দোলনের মাধ্যমে এ অধিকার ফিরিয়ে আনতে হবে। দেশের মানুষের ভোটের অধিকার না ফেরানো পর্যন্ত বিএনপি মাঠ ছাড়বে না, আন্দোলন চালিয়ে যাবে।

শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) সিলেট জেলা যুবদলের সম্মেলনে বিএনপির শীর্ষ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য প্রদানকালে এ কথা বলেন। সিলেট নগরীর রেজিস্টারি মাঠে আয়োজিত সম্মেলনে বেলা ২টার দিকে বিএনপির কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য প্রদান শুরু করেন। সম্মেলনে ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা তাহসিনা রুশদী লুনা, ড. এনামুল হক, বিএনপির সহ-ক্ষুদ্র ঋণ বিষয়ক সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক ও জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবুল কাহের শামীম প্রমুখ।

এর আগে শনিবার সকালে শুরু হওয়া সম্মেলনের উদ্বোধন করেন যুবদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু।

উল্লেখ্য, ২০০০ সালের পর এই প্রথমবারের আয়োজন করা হয় জেলা যুবদলের সম্মেলন। এই সম্মেলনের মধ্য দিয়ে নতুন নেতৃত্ব পাচ্ছে জেলা যুবদল।

শনিবার দুই অধিবেশনের মধ্য দিয়ে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রথম অধিবেশনে বিএনপি ও যুবদলের শীর্ষ নেতারা বক্তব্য রাখেন। দ্বিতীয় অধিবেশনে হচ্ছে কাউন্সিলরদের ভোটগ্রহণ। সিলেটের ১৩টি উপজেলা ও ৫টি পৌরসভা থেকে আগত কাউন্সিলররা ভোট দিয়ে জেলা যুবদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন করবেন।

সভাপতি পদে জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট সাঈদ আহমদ, জেলা যুবদলের সাবেক ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট মুমিনুল ইসলাম মুমিন, জেলা যুবদলের বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সাহেদ আহমদ চমন প্রার্থী হয়েছেন।

সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়েছেন জেলা যুবদলের সদস্যসচিব ও জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মকসুদ আহমদ, জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান নেছার ও জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক লিটন আহমদ। নেছার ও লিটন জেলা আহ্বায়ক কমিটির সদস্য।

এদিকে, সম্মেলন ঘিরে যুবদল নেতা-কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ দেখা যায়। শনিবার সকাল থেকেই শত শত নেতা-কর্মী মিছিল সহকারে সম্মেলনস্থলে এসে হাজির হন।

নেতা-কর্মীদের মিছিল, স্লোগানে সম্মেলনস্থলে উৎসবের আবহ বিরাজ করে। বিএনপি, জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে নিয়ে বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দেন নেতা-কর্মীরা। তাদের মুখে সরকারবিরোধী স্লোগানও শোনা যায়।

সম্মেলনস্থল রেজিস্টারি মাঠে বড় আকারের প্যান্ডেল বসানো হয়েছে। মাঠের চারপাশজুড়ে ব্যানার, ফেস্টুন, প্লেকার্ড লাগানো হয়েছে। জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া, তারেক রহমানের বড় বড় ছবিও আছে।