• সেপ্টেম্বর ১০, ২০২২
  • শীর্ষ খবর
  • 198
বিয়ানীবাজার-১ কূপে গ্যাস উত্তোলন শুরু

নিউজ ডেস্কঃ সিলেট গ্যাস ফিল্ড লিমিটেডের (এফজিএফএল )সিলেট-৮ বিয়ানীবাজার-১ ও কৈলাশটিলা ৭ নম্বর কূপ ওয়ার্কওভার প্রকল্পের আওতায় বিয়ানীবাজার ১ নং কূপের গ্যাস উত্তোলন কাজের উদ্বোধন হয়েছে।

শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) সকালে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা কাজের উদ্বোধন করেন।

কূপটির ওয়ার্কওভার অপারেশন কাজ করছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম এক্সপ্লোরেশন অ্যান্ড প্রোডাকশন কোম্পানি লিমিটেড-বাপেক্স।

প্রকল্পের তৃতীয় প্রকৌশলী সেবার আওতায় সিমেন্টেশন, ডিএসটি এবং স্নিকলাইন অপারেশন সার্ভিসসমূহ সংযুক্ত আরব আমিরাতের আলমনছুরী পেট্রোলিয়াম সার্ভিসেস এলএলসি এবং ওয়্যারলাইন লগিং সার্ভি চায়না পেট্রোলিয়াম লগিং কোম্পানি লিমিডেটের মাধ্যমে সম্পন্ন হবে।

ওয়ার্কওভার অপারেশন কাজ সফলভাবে সম্পন্নের পর কূপটি হতে দৈনিক ৭০ লাখ ঘনফুট গ্যাস উত্তোলন সম্ভব হবে, এমনটি আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সিলেট গ্যাস ফিল্ড লিমিটেডের আওতায় সিলেটের গোলাপগঞ্জ কৈলাশটিলা-৮ ও গোয়াইনঘাটে সিলেট ১০ নম্বর কূপ খনন এবং রশিদপুরে ১টি পাইপলাইন স্থাপন প্রকল্পের কার্যক্রম চলছে। এ কার্যক্রম শেষে এসজিএফএল’র গ্যাস উৎপাদন আরও বাড়বে।

এছাড়া দুইটি প্রকল্পের আওতায় বিয়ানীবাজার ফিল্ড এবং ব্লক-১৩ ও ১৪ এর আওতায় ডুপিটিলা, বাতচিয়া, হারারগঞ্জ, জকিগঞ্জ ও সিলেট সাউথ স্ট্রাকটারের ত্রিমাত্রিক সাইসমিক জরিপ কাজ সম্পন্নের জন্য চুক্তিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান বিজিপি ইনক. ফিল্ড ডিজাইনের কাজ সম্পনের পর প্রয়োজনীয় মালামাল সাইটে মবিলোইজেশন শুরু হয়েছে। সাইসমিক জরিপ প্রকল্প বাস্তবায়ন প্রকল্প দুইটির বাস্তবায়নের পর নতুন একাধিক কূপ খননের সম্ভাবনা তৈরি হবে।

এ কাজের পাশাপাশি সিলেট গ্যাস ফিল্ড লিমিটেড আরও ৩টি কূপ খনন ও ৪টি কূপ ওয়ার্কওভার কার্যক্রম নিয়েছে। ফলে ২০২৩ সালের মধ্যে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ গ্যাস জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হবে। সার্বিকভাবে বর্ণিত প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়নের পর ২০২৫ সালের মধ্যে সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেডের দৈনিক গ্যাস উৎপাদন ১৬৪ মিলিয়ন ঘনফুট বৃদ্ধি পাওয়ার উজ্জল সম্ভাবনা রয়েছে।

এ বিষয়ে সিলেট গ্যাস ফিল্ডের উপ মহা ব্যবস্থাপক (বিয়ানীবাজার ফিল্ড) প্রকৌশলী মোহাম্মদ আনোয়ার কবীর বলেন, এদিন সিলেট গ্যাস ফিল্ড লিমিডেটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মিজানুর রহমান বিয়ানীবাজার ১ নং কূপে গ্যাস উত্তোলন কাজের উদ্বোধন করেছেন। এখান থেকে দৈনিক ৭০ লাখ ঘনফুট গ্যাস উত্তোলন সম্ভব হবে।