• ডিসেম্বর ৮, ২০২২
  • শীর্ষ খবর
  • 63
সিলেটে নিরাপত্তা জোরদার

নিউজ ডেস্কঃ রাজধানী ঢাকায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ ও গ্রেফতারের ঘটনার পর সিলেট নগরীতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। সহিংসতার আশঙ্কায় সতর্কাবস্থায় রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

নজরদারিতে রাখা হয়েছে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের বেশ কিছু নেতাকে।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) সুদীপ দাস এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে নগরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে সাদা পোশাকে পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়েছে। সেই সঙ্গে টহল বাড়ানো হয়েছে। তবে কত সংখ্যক পুলিশ মাঠে রয়েছে, এ বিষয়টি কনফিডেন্সিয়াল।

তিনি বলেন, বিএনপি ও অংগসংগঠনের কাউকে আটক করা হয়নি। কেবল ওয়ারেন্টভুক্ত একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মহানগর পুলিশ সূত্র জানায়, ঢাকায় সংঘর্ষের ঘটনার পর বুধবার (০৭ নভেম্বর) সন্ধ্যার পর থেকে মানুষের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সবক’টি ইউনিটকে সতর্কাবস্থায় রাখা হয়েছে। রাতেও পুলিশের টহল জোরদার করা হয়। পাশাপাশি বিএনপির অপতৎপরতা রুখতে গোয়েন্দা নজরদারিতে রয়েছেন সংগঠনের নেতাকর্মীরা। কোথাও বিক্ষোভ সমাবেশের নামে অরাজকতার চেষ্টা চালানো হলে তাৎক্ষণিক অ্যাকশনে যেতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশনা দেওয়া আছে।

তাছা্ড়া যাদের ইশারায় নগরজুড়ে অরাজকতা সৃষ্টি হতে পারে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের সেসব নেতার গতিবিধির ওপর নজরদারি চলছে। পাশাপাশি রাজনৈতিক দুর্বৃত্ত ও বিভিন্ন নাশকতার মামলার আসামিদের গ্রেফতারে বিশেষ অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান ঊর্ধ্বতন এক পুলিশ কর্মকর্তা।

বৃহস্পতিবার নগর ঘুরে দেখা গেছে, বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশ সদস্যরা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার নেতৃত্বে স্ট্যান্ডবাই ডিউটিতে রয়েছেন।

বিশেষ করে নগরের চৌহাট্টা পয়েন্টে এসএমপির উপ-কমিশনার (উত্তর) আজবাহার আলীর নেতৃত্বে সতর্ক অবস্থায় রয়েছে পুলিশ। এছাড়া জিন্দাবাজার, আম্বরখানা, বন্দরবাজার, মেন্দিবাগ, সুবহানীঘাট, জিতু মিয়ার পয়েন্টি, রিকাবিবাজার, দক্ষিণ সুরমার হুমায়ন রশিদ চত্বরসহ নগরের প্রবেশদ্বারগুলোতে কর্মকর্তাদের নেতৃত্বে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কঠোর অবস্থানে রয়েছেন।

তবে বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত ঢাকার ঘটনায় সিলেটে বিএনপির নেতাকর্মীদের কোনো তৎপরতা লক্ষ্য করা যায়নি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •