• ডিসেম্বর ৩১, ২০২২
  • শীর্ষ খবর
  • 136
সিলেটে উন্মুক্ত স্থানে করা যাবে না থার্টি ফার্স্ট নাইটের অনুষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ পরিবার, বন্ধু-বান্ধব, সবাই একসঙ্গে আনন্দ-উল্লাসের মধ্য দিয়ে পুরোনোকে বিদায় আর নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে নানা প্রস্তুতি নিচ্ছেন নগরবাসী। তাই থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনকে কেন্দ্র করে নানা আয়োজনে ব্যস্ত সবাই। তবে ঘরের বাইরে উন্মুক্ত স্থানে কোনো অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যাবে না বলে জানিয়েছে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ (এসএমপি)।

শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) বিকাল ৫টা রবিবার ভোর ৬টা পর্যন্ত সিলেটে উন্মুক্ত স্থানে কোনো প্রকার গান-বাজনা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ডিজে পার্টি, আতশবাজি-পটকা ফুটানো সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে পুলিশ। শনিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় এসএমপি।

প্রায় প্রতি বছর থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে অনেকেই ফানুস উড়িয়ে আনন্দ করেন। এতে ঘটে অগ্নিকাণ্ড। যদিও গত বছরই দুর্ঘটনার আশঙ্কা ও নিরাপত্তাজনিত কারণে সারা দেশে ফানুস ওড়ানো ও আতশবাজি ফোটানোতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল পুলিশ। এই নির্দেশনা না মানার কারণেই গতবছর বিভিন্ন স্থানে অগ্নিকাণ্ড ঘটেছিল।

তাই এবছর ফানুস ওড়ানো ও আতশবাজি ফোটানোর বিষয়ে রয়েছে কঠোর নিষেধাজ্ঞা। এরপরও যদি এর ব্যত্যয় ঘটে এবং নগরবাসীর নিরাপত্তায় বিঘ্ন ঘটে, তবে নিরাপত্তার স্বার্থে ফৌজদারি কার্যবিধি অনুসারে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নিরাপত্তার স্বার্থে এবছর বাড়ির ছাদেও কোনো অনুষ্ঠান করার বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

এসএমপি’র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার সুদীপ দাস বলেন, মহানগরের প্রতিটি থানায় এ বিষয়ে মনিটরিং করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সিলেটের সার্বিক নিরাপত্তার প্রতিটি মোড়ে থাকবে পুলিশ সদস্য। থানা পুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দা পুলিশও নজরদারিতে থাকবে। ফানুস ওড়ানো ও আতশবাজি না ফোটানোতে কঠোরভাবে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এরপরও থার্টি ফাস্ট নাইটে উপলক্ষে সিলেটে যদি কেউ নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ফানুস ওড়ায় তাহলে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।