• জানুয়ারি ১, ২০২৩
  • শীর্ষ খবর
  • 282
সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে ৬ লেনের কাজ দ্রুত শেষ হবে : সচিব এহছানে এলাহী

নিউজ ডেস্কঃ শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব এহছানে এলাহী বলেছেন, সিলেট-ঢাকা ৬ লেনের কাজ শুরু হয়ে গেছে। আমরা আশাবাদী- এক কাজ খুব দ্রুত সম্পন্ন হবে।

শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) দুপুরে সিলেট সার্কিট হাউজে সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র উদ্যোগে আয়োজিত বৃহত্তর সিলেটের আঞ্চলিক পরিকল্পনা ও উন্নয়ন সংক্রান্ত গোলটেবিল বৈঠকে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন- বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে হলে আমাদের সকলকে পরিবর্তন হতে হবে। আমাদেরকে স্ব-স্ব ক্ষেত্রে নিজের কাজটি ঠিকমত করতে হবে। সবাই নিজ দায়িত্ব ঠিকমত পালন করলে কোথাও কোন সমস্যা থাকবেনা। বঙ্গবন্ধুর কথার উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, সোনার বাংলাদেশ গঠনের জন্য সোনার মানুষ লাগবে।

সচিব বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে রূপকল্প-২০৪১ কর্মপরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন। তাঁর যোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ আগামী ২০২৬ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে সমৃদ্ধশালী দেশে পরিণত হবে।

দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল বা বৃহত্তর সিলেটের আঞ্চলিক উন্নয়নে নর্থ-ইস্ট কমিশন ফর প্ল্যানিং এন্ড ডেভেলপমেন্ট (এনসিপিডি) বা রিজিওনাল প্ল্যানিং এন্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটি (আরপিডিএ) নামে একটি সংস্থা গঠনের প্রস্তাব করেন সচিব।

অনুষ্ঠানে অন্য বক্তারা ঢাকা-সিলেট হাই স্পিড ট্রেন চালু, সিলেটে বিশ্বমানের ইউনিভার্সিটি, নার্সিং ইন্সটিটিউট ও ট্রেনিং সেন্টার চালু, কৃষিখাতে উদ্যোক্তা সৃষ্টি, সিলেট-চট্টগ্রাম হাইওয়ে নির্মাণ, নতুন বিসিক শিল্প নগরী স্থাপন, সুরমা ও কুশিয়ারা নদীর নাব্যতা বৃদ্ধি, সিলেট থেকে বিদেশে স্কীল্ড কর্মী প্রেরণ, জালালাবাদ এসোসিয়েশন ও সিলেট সমিতি সহ সিলেটের সামাজিক সংগঠনগুলোর তৎপরতা বৃদ্ধি, সিলেটে আন্তর্জাতিক মানের ল্যাঙ্গুয়েজ সেন্টার ও আইটি ইউনিভার্সিটি স্থাপন সিলেটে পর্যটকসংখ্যা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিমানের ভাড়া হ্রাসকরণ সহ বিভিন্ন প্রস্তাবনা তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি তাহমিন আহমদ।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মাসুম আহমদ চৌধুরী, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সাবেক অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, আইসিটি বিভাগের সাবেক অতিরিক্ত সচিব মোঃ খায়রুল আমীন, সাবেক যুগ্ম সচিব জাফর রাজা চৌধুরী, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মোঃ সাইফুল হক চৌধুরী, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ বদরুল হক, সিলেট সরকারী আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ প্রফেসর মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসান, শাবিপ্রবির প্রফেসর ড. ফজলে এলাহী মোঃ ফয়সল, এমসি কলেজের প্রফেসর শেখ মোঃ নজরুল ইসলাম, বিডা সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক জুলিয়া যেসমিন মিলি, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ সচিব মোঃ শামছুল ইসলাম, গোলাপগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মঞ্জুর শাফি চৌধুরী এলিম, ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক মোহাম্মদ হাফিজ আহমদ, সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আল-আজাদ, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ সিরাজুল ইসলাম, সিলেট চেম্বারের পরিচালক জিয়াউল হক, আলীমুল এহছান চৌধুরী, ফাহিম আহমদ চৌধুরী, সদস্য তোফাজ্জল হোসেন এফসিএ, মাহদি সালেহীন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বারের পরিচালক আবু তাহের মোঃ শোয়েব, মুশফিক জায়গীরদার, মুজিবুর রহমান মিন্টু, দেবাংশু দাস, কাজী মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, চ্যানেল এস এর চেয়ারম্যান আহমেদ উস সামাদ চৌধুরী, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. সৈয়দ সায়েম উদ্দিন আহমেদ, সিলেট চেম্বারের সচিব মোঃ গোলাম আক্তার ফারুক, ইমজা’র সভাপতি মঈনউদ্দিন মঞ্জু, সরকারী উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ, সিলেটের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, শিক্ষাবিদ, বিনিয়োগকারী এবং সিনিয়র সাংবাদিকবৃন্দ।