• মার্চ ১৯, ২০২৩
  • শীর্ষ খবর
  • 141
মাটি কাটাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের আঘাতে যুবক ‘খুন’

নিউজ ডেস্ক: সিলেট সদর উপজেলার পীরেরচক বাজার এলাকায় মাটি কাটাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের আঘাতে এক যুবক ‘খুন’ হয়েছেন। মাটি কাটার মেশিন (এস্কেভেটর বা ভেকু) দিয়ে ওই যুবকের বুকে আঘাত করা হলে ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। রোববার (১৯ মার্চ) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আশিক মিয়া (৩৪) পীরেরচক কুশিরগুল গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত দুজন পলাতক রয়েছেন। এ ঘটনায় আশিকের ছোট ভাই মাসুক মিয়া বাদি হয়ে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) শাহপরাণ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

শাহপরাণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আনিসুর রহমান বলেন- এ ঘটনার কোনো প্রত্যক্ষদর্শী নেই। স্থানীয়রা আশিকের দেহ ওই জায়গায় পড়ে থাকতে দেখে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পর থেকে আশিকের দুই প্রতিবেশী পলাতক রয়েছেন। তারা হলেন- পীরেরচক গ্রামের মনহর আলী মনু মিয়ার ছেলে ইসরাব আলী (৫০) ও মাহমুদ হোসেন (৪৫)। ওসি জানান- মামলায় এ দুজনসহ একই এলাকার খুরশেদ আলম (৩৫) নামের একজনকে আসামি করা হয়েছে।

সৈয়দ আনিসুর রহমান বলেন- তাদের মাঝে আসলে কী হয়েছে সেটি এখনও জানা যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা যাচ্ছে- এটি খুনের ঘটনা। আশিকের বুকে গভীর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুরো বিষয় জানতে কাজ করছে পুলিশ। ময়না তদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে জানান ওসি আনিসুর রহমান।

এদিকে, স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে- অভিযুক্ত তিনজনের সঙ্গে আশিকের পরিবারের জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে দীর্ঘদিনের। রবিবার সকালে বিরোধপূর্ণ জায়গায় অভিযুক্তরা ভেকু দিয়ে মাটি কাটতে শুরু করেন। এসময় আশিক প্রতিবাদ করলে উভয়পক্ষের মাঝে ঝগড়া শুরু হয় এবং একপর্যায়ে ভেকুর আঘাতে তার প্রাণহানি ঘটে।