• এপ্রিল ১, ২০২৩
  • লিড নিউস
  • 126
সিলেটে পুলিশের বাধায় নির্ধারিত স্থানে কর্মসূচি করতে পারেনি বিএনপি

নিউজ ডেস্কঃ আগে থেকেই পুলিশ অবস্থান নিয়ে ব্যারিকেড তৈরি করে রাখায় পূর্বনির্ধারিত স্থানে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করতে পারেনি সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি। তবে পূর্বনির্ধারিত সমাবেশস্থল থেকে কয়েক শ গজের দূরে পৃথক স্থানে দলটি কর্মসূচি পালন করেছে।

আজ শনিবার বেলা সোয়া দুইটায় এ কর্মসূচি শুরু হয়।

বিএনপি জানিয়েছে, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে ১০ দফা দাবিতে জেলা ও মহানগর বিএনপি পৃথকভাবে দুই স্থানে আজ বেলা দুইটা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছিল। এ কর্মসূচি পালনের জন্য গত ২৭ মার্চ পুলিশের লিখিত অনুমতিও নিয়েছিল। তবে গতকাল শুক্রবার দুপুরে পুলিশ হঠাৎ অনুমতি বাতিল করে উন্মুক্ত স্থানে কর্মসূচি পালন না করতে বিএনপিকে নির্দেশনা দেয়।

এ অবস্থায় আজ দুপুরের মধ্যেই পুলিশ বিএনপির নির্ধারিত দুই সমাবেশস্থলে গিয়ে অবস্থান নিয়ে ব্যারিকেড তৈরি করে রাখে। এর ফলে নির্দিষ্ট সময়ে বিএনপি নেতা-কর্মীরা সমাবেশস্থলে গিয়ে পুলিশের বাধায় আর ঢুকতে পারেননি। পরে দলটির নেতা-কর্মীরা কয়েক শ গজ দূরে অবস্থান নিয়ে কর্মসূচি শুরু করেন।

মহানগর বিএনপির অবস্থান কর্মসূচি করার কথা ছিল নগরের চৌহাট্টা এলাকার সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। তবে আজ দুপুরের আগেই শহীদ মিনারে গিয়ে পুলিশ অবস্থান নিয়ে ব্যারিকেড তৈরি করে রাখে। পরে দলটির নেতা–কর্মীরা নগরের দরগাগেট এলাকার কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের (কেমুসাস) সামনে গিয়ে কর্মসূচি শুরু করেন।

মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন সভাপতিত্বে অবস্থান কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন। এ ছাড়া সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ কেন্দ্রীয় নেতারা বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

নাসিম হোসাইন বলেন, ‘যথাযথ পদ্ধতিতে অনুমতি নিয়েও পুলিশের ব্যারিকেডের কারণে নির্ধারিত স্থানে আমরা কর্মসূচি করতে পারিনি। তাই নগরের দরগাগেট এলাকায় আমরা কর্মসূচি পালন করেছি।’

এদিকে জেলা বিএনপির অবস্থান কর্মসূচি হওয়ার কথা ছিল সিলেট শহরের উপকণ্ঠে দক্ষিণ সুরমার চণ্ডীপুল এলাকার একটি উন্মুক্ত মাঠে। সেখানেও পুলিশ আগে থেকে অবস্থান নেওয়ায় বিএনপির নেতা-কর্মীরা ঢুকতে পারেননি। পরে ওই মাঠের বিপরীতে আরেকটি উন্মুক্ত স্থানে জেলা বিএনপি নির্ধারিত সময়ের ১৫ মিনিট পর কর্মসূচি শুরু করে।

জেলা বিএনপির কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার আবদুল মুক্তাদির। সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেন, বিএনপি শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচির আয়োজন করেছে। অথচ পুলিশের বাধায় নির্ধারিত স্থানে কর্মসূচি করতে দেয়নি। এ অবস্থায় আগের কর্মসূচিস্থলের ঠিক বিপরীতে বিএনপি অবস্থান নিয়ে কর্মসূচি শুরু করে।

জানতে চাইলে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (গণমাধ্যম) সুদীপ দাস বলেন, বিএনপিকে কর্মসূচি পালনে পুলিশ বাধা দেয়নি। পুলিশ যদি বাধা দিত, তাহলে যেখানে বিএনপি কর্মসূচি করেছে, সেখানেও করতে পারত না। শুধু উন্মুক্ত স্থানে কর্মসূচি পালন না করতে বিএনপিকে অনুরোধ জানানো হয়েছিল। ইনডোরে কর্মসূচি করার পরামর্শ গতকালই তাদের দেওয়া হয়েছে।