• এপ্রিল ৮, ২০২৩
  • শীর্ষ খবর
  • 159
ছেলের সঙ্গে বাড়ি ফেরা হলো না মায়ের, সড়কে গেল প্রাণ

নিউজ ডেস্কঃ সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলায় ছেলের সঙ্গে মোটরসাইকেলে করে বাড়ি ফিরছিলেন রেনু বেগম (৪২)। পথে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রাকের পেছনে ধাক্কা দেয় মোটরসাইকেলটি। এতে মা-ছেলে দুজনই আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক রেনু বেগমকে মৃত ঘোষণা করে।

দুর্ঘটনায় আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ছেলে মাসুম আহমদ (২০)। রেনু বেগম জকিগঞ্জ উপজেলার কসকনকপুরের মৃত সফিকুর রহমানের স্ত্রী। গতকাল শুক্রবার রাতে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের মানিকপুর ইউপির চালিয়াকাপন বটতলা এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, রেনু বেগম ও তাঁর ছেলে মাসুম আহমদ এক আত্মীয়ের বাড়িতে ইফতার শেষে রাত আটটার দিকে মোটরসাইকেলে করে বাড়ির দিকে ফিরছিলেন। পথে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের জকিগঞ্জের চালিয়াকাপন বটতলা এলাকায় পৌঁছালে সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রাকের পেছনে গিয়ে ধাক্কা খায় মোটরসাইকেলটি। এতে মা-ছেলে দুজনই গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেন। সেখানে রেনু বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

সিলেট জেলা পুলিশের পরিদর্শক (সহকারী মিডিয়া ফোকাল কর্মকর্তা) শ্যামল বণিক বলেন, নিহত ব্যক্তির মরদেহ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তরের কথা রয়েছে। এ ব্যাপারে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।