• এপ্রিল ২৫, ২০২৩
  • শীর্ষ খবর
  • 186
সুনামগঞ্জে মাদক বিক্রির টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বে বন্ধুকে খুন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলায় মাদক ব্যবসার টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে তাজুদ আলী (৪০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত নিহত তাজুদের বন্ধু সোহেল মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৪ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার কাটাখালী বাজারে ঘটনা ঘটে। তাজুল মিয়া ইউনিয়নের আহমদনগর কাটাখালী গ্রামের মৃত আগন আলীর ছেলে। আর সোহেল উপজেলার মান্নারগাও ইউনিয়নের কদমতলী গ্রামের রিফাত আলীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, সোহেল ও তাজুদ দুজন একে অপরের ঘনিষ্ঠ বন্ধু। তারা দুজন মিলে দীর্ঘদিন ধরে সীমান্ত এলাকায় মদ ও গাঁজা ভারত থেকে অবৈধভাবে এনে বিক্রি করতেন। সোহেলের ভগ্নিপতি সুরমা ইউনিয়নের নোয়াগাও গ্রামের মবশ্বর আলীর ছেলে সেলিম মিয়া ও সুরমা ইউনিয়নের কদমতলী গ্রামের আব্দুল খালিকের ছেলে জুয়েল মিয়ার সঙ্গে মাদক বিক্রির টাকা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। সোমবার রাতে এ বিরোধের জেরে কাটাখালী বাজারে প্রথমে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সোহেল, সেলিম ও জুয়েল ছুরি দিয়ে বন্ধু তাজুদের পেটসহ দেহের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর জখম করে ফেলে রেখে যান। পরে স্থানীয়রা তাজুদকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত ১১টার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেব দুলাল ধর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মাদকের টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে তাজুদকে তার বন্ধুরা ছুরিকাঘাত করেন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাজুদকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনার সময় অভিযুক্ত সোহেলও আহত হলে তাকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পুলিশ তাকে আটক দেখায়। তবে সেলিম ও জুয়েল পলাতক রয়েছেন।