• মে ১৩, ২০২৩
  • লিড নিউস
  • 609
লাঙ্গল রেখে নৌকায় ভোট চাইলেন জাপার সাবেক এমপি ইয়াহ্ইয়া

নিউজ ডেস্কঃ সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থী দিয়েছে জাতীয় পার্টি (জাপা)। দলীয় মনোনয়ন পেয়ে মহানগর জাপার সমন্বয়ক শিল্পপতি নজরুল ইসলাম বাবুল যখন মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন, ঠিক তখনই নৌকার পক্ষে প্রচারে দেখা গেছে সিলেট-২ আসনে জাপার সাবেক সংসদ সদস্য ইয়াহ্ইয়া চৌধুরীকে।

দলীয় প্রার্থী রেখে মেয়র পদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর পক্ষে ভোট চেয়েছেন জাপার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী। ঘটনাটি এখন ‘টক অব দ্যা সিটি। ’

এদিকে দলের ভাইস চেয়ারম্যানের এমন আচরণে নাখোশ জাপার মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম বাবুল। তিনি ইয়াহ্ইয়া চৌধুরীর বিরুদ্ধে পার্টির চেয়ারম্যানের কাছে মৌখিক নালিশ করেছেন এবং প্রমাণ হিসেবে তার বক্তব্যের ভিডিওচিত্র পাঠিয়েছেন।

এ বিষয়ে নজরুল ইসলাম বাবুল বলেন, মহাজোটের ব্যানারে অল্প বয়সে এমপি হয়েছিলেন ইয়াহইয়া চৌধুরী। তিনি একজন ধূর্ত প্রকৃতির মানুষ। বিভিন্ন সময় আমার কর্মসূচিতে তাকে আমন্ত্রণ জানালেও আসেননি। অথচ আওয়ামী লীগের প্রার্থীর সভায় অংশ নিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট চেয়েছেন। দলের একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে তিনি কিছুতেই এমনটি করতে পারেন না। তার শৃঙ্খলাবিরোধী এসব কর্মকাণ্ডের ছবি ও ভিডিও ফুটেজ পার্টির চেয়ারম্যান ও মহাসচিবের কাছে পাঠিয়েছি। তারা ইয়াহ্ইয়া চৌধুরীর বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেবেন।

তিনি বলেন, আনোয়ারুজ্জামানের পক্ষে কাজ করলে সংসদ নির্বাচনে সিলেট-২ আসনে তাকে মনোনয়ন পাইয়ে দেবেন, এমন ভাবনা ইয়াহইয়া চৌধুরীর থাকলে তিনি বোকার রাজ্যে বসবাস করেন। জাতীয় পার্টির নেতা হয়েও তিনি ডিগবাজি দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে জাপার সাবেক এমপি ইয়াহইয়া চৌধুরী বলেন, শুক্রবার রাতে এভারগ্রীণ ক্লাবের উদ্যোগে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে মতবিনিয় সভার আয়োজন করা হয়। পাড়ার একজন বাসিন্দা হিসেবে সেখানে গেছি, এটা কোনো দলীয় প্রোগ্রাম ছিলে না। আর নৌকার প্রার্থী আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী আমার নিকটাত্মীয় এবং একই নির্বাচনী এলাকার বাসিন্দা। তিনি আমার নির্বাচনেও অনেক খেটেছেন। যে কারণে অতীত ভুলে যেতে পারি না। ওনার প্রয়োজনে আমাকে ডাকেন। কিন্তু মেয়র পদে জাপার প্রার্থী এ এলাকায় অনুষ্ঠান করে গেলেও দাওয়াত দেননি।

শুক্রবার (১২ মে) রাতে নগরের ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের ঝেরঝেরি পাড়ায় এভারড়গ্রীণ ক্লাবের উদ্যোগে আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর সমর্থনে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-২ আসন থেকে নির্বাচিত মহাজোটের প্রার্থী সাবেক এমপি ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী।

সেই সভায় ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী দলমত নির্বিশেষে নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করে সিলেটের উন্নয়ন কার্যক্রমকে এগিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রীর মনোনীত প্রার্থী আনোয়ারুজ্জামানকে বিজয়ী করতে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি একটি দলের কর্মী তারপরও এমন একজনের পক্ষে ভোট চাইতে এসেছি, যদি আপনাদের রাত ২ টার সময়ে কোনো সমস্যা হয় এবং তাকে ফোন দিলে তিনি আপনাদের ডাকে সাড়া দেবেন। তাই আমি নিজের দলীয় পরিচয় ভুলে গিয়ে ওনার পক্ষে আপনাদের কাছে ভোট চাইছি। ’

তিনি আরও বলেন, আনোয়ারুজ্জামান একজন ভালো মনের মানুষ। দীর্ঘদিন থেকে তাকে আমি চিনি। তিনি নগরবাসীর উন্নয়নে কাজ করতে বদ্ধ পরিকর। তাই আগামী ২১ জুন ভোট দিয়ে নৌকাকে বিজয়ী করার আহবান জানাই।

প্রসঙ্গত আগামী ২১ জুন সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিকি) নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ করা হবে। তফসীল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২৩ মে, বাছাই ২৫ মে এবং প্রত্যাহারের শেষ সময় ১ জুন।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীসহ পাঁচজন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। মেয়র পদে অপর প্রার্থীরা হলেন- বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলনের হাফিজ মাওলানা মাহমুদুল হাসান, তিন স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান খান, সামছুন নুর তালুকদার ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ আবদুল হানিফ কুটু।