• মে ২০, ২০২৩
  • জাতীয়
  • 115
সিটি নির্বাচনকে ট্রায়াল হিসেবে নিয়েছে কমিশন: ইসি সচিব

নিউজ ডেস্কঃ পাঁচ সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে ট্রায়াল হিসেবে নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

শনিবার (২০ মে) গাজীপুরের বঙ্গতাজ অডিটোরিয়ামে এক মতবিনিময় সভায় এমন মন্তব্য করেছেন ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলম। এ সময় সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সবার সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং অফিসারদের নিয়ে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে দেওয়া ভাষণে ইসি সচিব বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজন করা গেলে আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে দেশবাসী, রাজনৈতিক দল এবং সারা বিশ্ববাসীর মধ্যে অন্য ধরনের একটি অনুভূতি কাজ করবে।

প্রিজাইডিং অফিসারদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, সুনির্দিষ্ট কোনো ফর্মুলা নেই। আমরা যা বলছি সেটি পূর্ব অভিজ্ঞতার আলোকে। আপনারা লোকবল নিয়ে সমন্বয় করবেন। প্রতিটি ওয়ার্ডে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্যাট দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ১৯টি সংরক্ষিত মহিলা আসনেও প্রিজাইডিং কর্মকর্তা দেওয়া হয়েছে। আপনারা প্রটোকল ব্যাগে অবশ্যই মোবাইল ও চার্জার রাখবেন। কোনো অবস্থায় যেন ফোন অফ না থাকে। নারী কর্মকর্তারা কিভাবে রাতযাপন করবেন সেটি আপনারা পরিকল্পনা করবেন। আপনারা এই নির্বাচনকে জাতীয় দায়িত্ব হিসেবে বিবেচনা করবেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন গাজীপুর সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ফরিদুল ইসলাম। তিনি প্রিজাইডিং অফিসারদের নানা বিষয়ে দিকনির্দেশনা দেন। বলেন, ভৌগোলিক কারণে পাঁচটি জোন করা হয়েছে। প্রিজাইডিং অফিসারদের এসব জোন থেকে নির্বাচনী মালামাল সংগ্রহ করতে হবে। ভোট গননা শেষে সেখানেই বুঝিয়ে দিতে হবে। পরে ফলাফল শিট রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে পৌঁছে দিতে হবে। এছাড়া এক কপি নিকটস্থ পোস্ট অফিসের মাধ্যমে সাবমিট করতে হবে।

ফরিদুল ইসলাম বলেন, নির্বাচন চলাকালে কেন্দ্রের সব ক্ষমতা আপনাদের হাতে থাকবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য কিংবা অন্য কেউ আপনাদের ফোর্স করার ক্ষমতা রাখবে না।

মতবিনিময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক এ কে এম হুমায়ুন কবীর, আইডেন্টিফিকেশন সিস্টেম ফর এনহান্সিং অ্যাকসেস টু সার্ভিসের প্রকল্প পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবুল হাসনাত মোহাম্মদ সায়েম, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান প্রমুখ।