• মে ২৩, ২০২৩
  • শীর্ষ খবর
  • 202
সুনামগঞ্জে বজ্রপাতের সময় নদীতে নিখোঁজ কিশোরের লাশ উদ্ধার

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলায় বজ্রপাতের সময় ইঞ্জিনচালিত নৌকা থেকে নদীর পানিতে পড়ে নিখোঁজ হয় ওমর ফারুক (১৫) নামের এক কিশোর। প্রায় পৌনে তিন ঘণ্টা পর ওমর ফারুকের লাশ উদ্ধার করেছেন স্থানীয় জেলেরা।

আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে বজ্রপাত শুরু হলে উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়নের বড়ইয়া নদীতে পড়ে যায় ওমর ফারুক। পরে দুপুর পৌনে ১২টার দিকে নদী থেকেই ওই কিশোরের লাশ উদ্ধার করা হয়।

ওমর ফারুক জয়শ্রী ইউনিয়নের বাদে হরিপুর গ্রামের আলীম উদ্দিনের ছেলে। সে স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র। এদিকে বজ্রপাতের সময় ওই নৌকায় থাকা একই গ্রামের কৃষক আবুল কাশেম (৫৫), তাঁর ছেলে শাহীন মিয়া (১৫) ও কালাচান (৬৫) আহত হন। এর মধ্যে আবুল কাশেমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ধর্মপাশা থানা-পুলিশ ও স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সকাল পৌনে ৯টার দিকে দুই কৃষক ও দুই কিশোর ইঞ্জিনচালিত একটি নৌকায় ধানবোঝাই করে পাশের মধ্যনগর উপজেলার মধ্যনগর বাজারের উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। ওই সময় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছিল। সকাল ৯টার দিকে নৌকাটি ওই ইউনিয়নের বড়ইয়া নদীতে এলে আকস্মিক বজ্রপাত শুরু হয়। এ সময় ওমর ফারুক নৌকা থেকে নদীর পানিতে পড়ে যায়। বজ্রপাতে নৌকায় থাকা দুই কৃষক আবুল কাশেম ও কালাচান এবং কাশেমের ছেলে শাহীন আহত হন।

পরে স্থানীয় জেলেরা আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করেন এবং নিখোঁজ ওমর ফারুককে উদ্ধারে নদীতে জাল ফেলে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। একপর্যায়ে দুপুর পৌনে ১২টার দিকে নদী থেকে মৃত অবস্থায় ওমর ফারুককে উদ্ধার করা হয়।

ধর্মপাশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, ঘটনার খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।