• মে ২৫, ২০২৩
  • লিড নিউস
  • 232
ইভিএম অত্যন্ত সুন্দর পদ্ধতি : আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী

নিউজ ডেস্কঃ ‘ইভিএম অত্যন্ত সুন্দর পদ্ধতি উল্লেখ’ করে সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আনোয়ারুজ্জামান বলেন, যাঁরা প্রার্থী আছেন, তাঁরা সবাই শক্তিশালী। নির্বাচনে যাঁরা আসেননি, তাঁদের নিয়ে আলোচনারও কিছু নেই।

আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, যারা দেশে নির্বাচন চায় না, দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়, যারা এই দেশকে অন্যদের দ্বারা প্রভাবিত ও পরিচালনা করতে চায়, তারাই ষড়যন্ত্র করছে।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নগরের মেন্দিবাগ এলাকায় সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে যাচাই-বাছাই শেষে তাঁর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ফয়সাল কাদের।

নির্বাচনী বিধি ভঙ্গের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার দিন দলের পক্ষ থেকে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির নেতাদের নিয়ে তিনি প্রবেশ করেছেন। তিনি ও তাঁর সমর্থক কোনো নির্বাচনী আইন ভঙ্গ করেননি।

মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে আজ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা পাঁচজন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেছেন। বৈধ ঘোষণা করেছেন ছয়জন মেয়র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র। যাঁদের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে, তাঁরা হলেন আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো. আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী (নৌকা), জাতীয় পার্টির মনোনীত নজরুল ইসলাম বাবুল (লাঙ্গল), ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মাহমুদুল হাসান (হাতপাখা), জাকের পার্টির প্রার্থী মো. জহিরুল আলম (গোলাপ ফুল), স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ আবদুল হানিফ ও মো. ছালাহ উদ্দিন রিমন।

মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীরা হলেন সামছুন নুর তালুকদার, মোহাম্মদ আবদুল মান্নান খান, জাহিদ উদ্দিন চৌধুরী, মো. শাহ জাহান মিয়া ও মোশতাক আহমেদ। তাঁরা সবাই স্বতন্ত্র প্রার্থী।

২৩ মে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও জমার দিন শেষ দিন ছিল। নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ২১ জুন সিলেট সিটির ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ১ জুন প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। ২ জুন প্রতীক বরাদ্দ শেষে আনুষ্ঠানিক প্রচারে নামতে পারবেন প্রার্থীরা।