• আগস্ট ২৬, ২০২৩
  • লিড নিউস
  • 250
‘আ. লীগ লুটপাট ও ক্ষমতায় টিকে থাকতে সব করতে পারে’

নিউজ ডেস্কঃ বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার পদত্যাগের কথা শুনলে ভীত হয়ে যায়, চেয়ারের মায়া ছাড়তে পারে না। তারা লুটপাট ও ক্ষমতায় টিকে থাকতে সব করতে পারে। দেশবাসী জেগে উঠেছে, পদত্যাগ করতেই হবে, এর বিকল্প নেই।

শামসুজ্জামান দুদু বলেন, আমাদের দাবি একটাই, একটি নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন। আর নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে জনগণের সরকার রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব পাবে। দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা হলে সিলেটবাসীর প্রিয় নেতা এম ইলিয়াস আলীসহ গুম হওয়া দলের সব নেতাকর্মীদের ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে। তাই দেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার, ভোটাধিকার ফিরে পাওয়ার জন্য সর্বস্তরের জনগণকে ঐক্যবদ্ধভাবে ফ্যাসিস্ট সরকারের পতন নিশ্চিত করতে রাজপথে নামতে হবে।

শনিবার (২৬ আগস্ট) বিকেলে নগরের রেজিস্ট্রারি মাঠে সরকারের পদত্যাগের এক দফা দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে মহানগর বিএনপি আয়োজিত কালো পতাকা গণমিছিল আগে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার দেশের গণতন্ত্র, বাকস্বাধীনতা ও ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে। এই সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশে কোনো দিনও অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন এবং হারানো গণতন্ত্র ফিরে আসা অসম্ভব। এজন্য আমরা বলেছি, অবিলম্বে এই সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে, নিশি রাতের অবৈধ সংসদ এবং আজ্ঞাবহ কমিশন ভেঙে দিতে হবে। এছাড়া দেশে কোন নির্বাচন হবে না। এসব দাবি আদায় করে সরকারকে বিদায় করতে যা যা করা প্রয়োজন দলের প্রতিটি নেতাকর্মীদের তাই করতে হবে।

সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ইমদাদ হোসেন চৌধুরীর পরিচালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উদ্দিন মিলন, নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী।

জেলা ওলামা দলের আহ্বায়ক মাও. নুরুল হকের কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আশিক উদ্দিন আশুক, মহানগর বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক রেজাউল হাসান কয়েস লোদী।

সমাবেশের পর নগরের রেজিস্ট্রারি মাঠ থেকে কালো পতাকা গণমিছিলে শুরু হয়ে নগরের কোর্ট পয়েন্টে গিয়ে শেষ হয়। এতে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি এবং অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরাও অংশ নেন।