• সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২৩
  • খেলাধুলা
  • 263
নাসিরের বিরুদ্ধে আইসিসির দুর্নীতির অভিযোগ

ক্রীড়া ডেস্কঃ বাংলাদেশের ক্রিকেটার নাসির হোসেনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ এনেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা-আইসিসি। আবুধাবি টি-টেন লিগে খেলতে গিয়ে দুর্নীতিবিরোধী তিনটি ধারা ভঙ্গের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন নাসির।

২০২১ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবি টি-১০ লিগে খেলতে গিয়েছিলেন টাইগার এই ক্রিকেটার। সেখানে সন্দেহভাজন ব্যক্তির কাছ থেকে উপহার নিয়েছেন বলে অভিযোগ এনেছে এমেরেটস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। এ ছাড়া আইসিসির কোড অব কন্ডাক্ট অনুযায়ী একটি আমন্ত্রণের পূর্ণাঙ্গ তথ্য দিতেও ব্যর্থ হয়েছেন নাসির। এ বিষয়ে আইসিসির করা তদন্তে সহায়তা না করারও অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

আজ (মঙ্গলবার) এক বিজ্ঞপ্তিতে আইসিসি জানিয়েছে, আমিরাত ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে এ অভিযোগ গঠন করেছে তারা। নাসিরের বিরুদ্ধে দুর্নীতিবিরোধী কোডের তিনটি ধারা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে। নাসির ছাড়াও খেলোয়াড় ও অফিসিয়াল মিলিয়ে মোট আটজন অভিযুক্ত হয়েছেন।

নাসিরের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, দুর্নীতিবিরোধী ২.৪.৩ ধারায় তদন্তের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তাকে (ডিএসিও) ৭৫০ ডলারের বেশি অর্থ মূল্যের উপহার নেওয়ার বিষয়টি জানাতে ব্যর্থ হয়েছেন।

২.৪.৪ ধারায় দুর্নীতি বা ম্যাচ ফিক্সিংয়ের কোনো প্রস্তাব তিনি পেয়েছিলেন কি না, তাকে কোনোভাবে প্ররোচিত করা হয়েছিল কি না তা তদন্তের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিকে জানাতে ব্যর্থ হয়েছেন।

২.৪.৬ ধারায় তিনি সম্ভাব্য দুর্নীতিতে যুক্ত ছিলেন এমন তদন্তের বিষয়ে দুর্নীতির তদন্তে থাকা কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানাতে ব্যর্থ হয়েছেন বা তদন্তে সহযোগিতা করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, আবুধাবি টি-টেন লিগে ২০২১ সালে পুনে ডেভিলসের নেতৃত্বে ছিলেন নাসির। যদিও গ্রুপ পর্বে ৬ ম্যাচে ২ জয়ে ৮ দলের মধ্যে সবার শেষে ছিল দলটির অবস্থান। ভালো করতে পারেননি নাসির নিজেও।

২০১৮ সালে সর্বশেষ জাতীয় দলের হয়ে খেলেছিলেন নাসির হোসেন। এরপর আর দেশের জার্সিতে দেখা যায়নি তাকে। সর্বশেষ বিপিএলে ভালো পারফরম্যান্সের সুবাদে জাতীয় দলে ফেরার গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল, তবে সেটি আর হয়নি।