• নভেম্বর ২২, ২০২৩
  • শীর্ষ খবর
  • 150
ধানের গুদামে ১০ টন চোরাই সার, ব্যবসায়ীর অর্থদণ্ড

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জে ধানের গুদামে অবৈধভাবে মজুদ করে রাখা ১০ টন রাসায়নিক সার বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) রাতে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পইল নতুন বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে এ সার বাজেয়াপ্ত করা হয়।

সেই সঙ্গে এসময় এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয় মজুদদার ব্যবসায়ী বাচ্চু মিয়াকে।

তিনি নতুন বাজারের পরিচিত ব্যবসায়ী ও সার মজুদ করে রাখা গুদামটির মালিক।

সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা একেএম মাকসুদুল আলম জানান, সরকারের গুদাম থেকে তালিকাভুক্ত ডিলার নির্দিষ্ট পরিমাণে সার তুলতে পারেন এবং নিয়ম মেনে তা বিক্রি করে থাকেন।

বাচ্চু মিয়া সেই তালিকায় নেই, লাইসেন্স বা বৈধ কোনো কাগজপত্রও তার নেই।

কিন্তু অভিযানে তার ধানের গুদামে ১০ টন টিএসপি, এমওপি ও ডিএপি সার পাওয়া গেছে৷ কাগজপত্র দেখতে চাইলে তিনি দেখাতে পারেননি।

পরে হবিগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আয়েশা আক্তার ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেন।

কৃষি কর্মকর্তা আরও জানান, ধানের আড়ালে লুকিয়ে রাখা ১০ টন সার বাজেয়াপ্ত করে সরকারি গুদামে রাখা হয়েছে। অন্য কোথাও যদি এমন অপরাধের খবর মেলে, তাহলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে অভিযোগ রয়েছে, জেলার আজমিরীগঞ্জ ও বানিয়াচং উপজেলার বাজারে সারের কৃত্রিম সংকট তৈরি করতে কিছু ব্যবসায়ী সার মজুদ করে রেখেছেন।