• জানুয়ারি ২৪, ২০২৪
  • খেলাধুলা
  • 48
সিলেটে বিপিএলের টিকিট কালোবাজারে, লাইনে ভিক্ষুক ও বয়স্করা!

নিউজ ডেস্কঃ আগামী শুক্রবার দুটি পাতা একটি কুঁড়ির দেশ সিলেটে শুরু হওয়ার অপেক্ষায় বিপিএল। আগামী ২৬ জানুয়ারি (শুক্রবার) রংপুর ও খুলনার ম্যাচ দিয়ে সিলেট পর্ব শুরু হবে। এরই মধ্যে সিলেট পর্বের টিকিট কালোবাজারি করার অভিযোগ উঠেছে টিকিট বিক্রির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষসহ কালোবাজারিদের বিরুদ্ধে।

বুধবার (২৪ জানুয়ারি) সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে বিক্রিকালে এমন অভিযোগ করেন টিকিট কিনতে আসা ক্রীড়ামোদী দর্শকরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, সিলেট নগরের রিকাবীবাজারস্থ জেলা স্টেডিয়ামে সকাল থেকে টিকিট বিক্রির বুথে ভিড় করেন ২৬ তারিখের ম্যাচের টিকিট কিনতে আসা দর্শকরা। সকাল ১০ টা থেকে টিকিট বিক্রি শুরুর আধাঘন্টার মধ্যে ২০০ টাকা দামের টিকিট শেষ হয়েছে মর্মে কাউন্টার থেকে জানানো হলে ক্ষোভ ঝাড়তে থাকেন লাইনে দাঁড়ানো থাকা ক্রিকেটপ্রেমিরা।

ভিক্ষুক ও পঞ্চাশোর্ধ নারীদের বিকল্প লাইনে দাঁড় করিয়ে টিকিট হাতিয়ে নিচ্ছেন কালোবাজারিরা। এসময় মহিলাদের লাইনে দাঁড়ানো কয়েকজনের সঙ্গে কথা বললে তারা কিসের ম্যাচ বা কোথায় খেলা অনুষ্ঠিত হবে জানতে চাইলে কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

প্রতিবেদকের সাথে কথা হয় বেশ কয়েকজন সাধারণ দর্শকের। তারা জানান, ভিক্ষুক ও পঞ্চাশোর্ধ নারীদের বিকল্প লাইনে দাঁড় করিয়ে টিকিট হাতিয়ে নিচ্ছেন কালোবাজারিরা। এসময় মহিলাদের লাইনে দাঁড়ানো কয়েকজনের সাথে কথা বললে তারা কিসের ম্যাচ বা কোথায় খেলা অনুষ্ঠিত হবে জানতে চাইলে কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

এসময় গণকমাধ্যমকর্মীদের উপস্থিতি টের পেয়ে সটকে পড়েন কালোবাজারির মূল হোতারা। এরপর ৪০০ টাকা দামের টিকিট বিক্রি শুরু হলে তা দুপুর ১২ টার মধ্যে শেষ হয়ে যায়। তখন অনেকেই বিক্ষুব্ধভাবে স্লোগান দিতে থাকেন।

টিকিট কিনতে আসা দক্ষিণ সুরমার আবুল ফয়েজ জানান, আমরা সকালে এসেছি টিকিট কেনার জন্য। কিন্তু আধাঘণ্টা পর কাউন্টার থেকে জানানো হয়েছে ২০০ টাকার টিকিট নেই। এইটা কোনো কথা? এতো টিকিট গেল কোথায়।

এ বিষয়ে টিকিট কাউন্টারে টিকিট বিক্রির দায়িত্বে নিয়োজিত থাকা লোকজনের কাছে জানতে চাইলে তারা কোনো সদুত্তর না দিয়ে মুখে কুলুপ এঁটে মোবাইলে ব্যস্ত হয়ে পড়েন।

টিকিট বিক্রির অনিয়মের বিষয়ে জানতে চাইলে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের মিডিয়া ইনচার্জ ফরহাদ কোরেশি জানান, টিকিট করছে থার্ড পার্টি (তৃতীয় পক্ষ)। এখানে কিভাবে বিক্রি করছে তারা আমরা জানি না। টিকিট কার মাধ্যমে বিক্রি করা হচ্ছে এরকম প্রশ্নে তিনি জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে আমি জেনে আপনাদের জানাব।