• ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২৪
  • শীর্ষ খবর
  • 16
সিলেটে পরিবহন ধর্মঘটে দিনভর ভোগান্তি, বিকালে স্থগিত

নিউজ ডেস্ক: সিলেটে ৫ দফা দাবিতে ডাকা পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত করেছে জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেল পৌনে ৪টার দিকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বৈঠক শেষে ধর্মঘট তুলে নেওয়ার ঘোষণা দেন পরিবহন শ্রমিক নেতারা।

জানা যায়, বৈঠকে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে ১১ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটি আগামী ১১ মার্চের মধ্যে পরিবহন শ্রমিকদের ৫ দফা দাবি নিয়ে বৈঠক করবেন এবং তাদের যৌক্তিক দাবিগুলো সমাধানে কাজ করবেন।

গ্যাসের সমস্যা সমাধানে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলেছেন, আগামী রমজান মাস পর্যন্ত সিলেটে গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করা হবে। রমজানের পর সিসিক মেয়র দায়িত্ব নিয়ে গ্যাস লিমিট বাড়ানোর চেষ্টা করবেন। এ ছাড়া সিএনজির মামলার বিষয়ে আজ রাত ৮টার পর মেয়রের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন পরিবহন শ্রমিকরা।

এর আগে বুধবার বেলা আড়াইটার দিকে জেলা প্রশাসক শেখ রাসেল হাসানের সঙ্গে বৈঠকে বসেন পরিবহন শ্রমিক নেতারা। বৈঠক শুরুর পর অংশ নেন সিসিক মেয়র মো. আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী।

পরিবহন শ্রমিকদের দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে, সিলেটের সিএনজি রিফুয়েলিং স্টেশনগুলোতে গ্যাসের সংকট দূর করা, রাজনৈতিক বিভিন্ন মামলায় আটক শ্রমিকদের মুক্তি এবং ২০২১ সালে চৌহাট্টায় শ্রমিকদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের করা মামলা প্রত্যাহার করা ইত্যাদি।

এদিকে, ধর্মঘটের কারণে বুধবার ভোর থেকেই বাসস্টেশনগুলো থেকে ছেড়ে যায়নি আঞ্চলিক ও দূরপাল্লার বাস। এতে ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা। বিশেষ করে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়। পরিবহন সংকটের কারণে শিক্ষার্থীদের রিকশা নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে যেতে হয়েছে। অনেক শিক্ষার্থীকে পুলিশের ভ্যানে কেন্দ্রে পৌঁছে দিতে দেখা যায়। এ ছাড়াও ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে চাকরিজীবীদের। যানবাহন না থাকায় অনেকে পায়ে হেঁটে অফিসে গিয়েছেন। কেউ কেউ পিকআপ, মাইক্রোবাস, অটোরিকশা, থ্রি-হুইলারসহ বিভিন্ন ছোট যানবাহনে গন্তব্যে ছুটেছেন। তবে এক্ষেত্রে তাদের গুনতে হয়েছে কয়েকগুণ বেশি ভাড়া।