• এপ্রিল ১৯, ২০২৪
  • শীর্ষ খবর
  • 29
দিরাইয়ে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জ জেলার দিরাইয়ে দিনমজুর বাবার ১২ বছর বয়সী বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরী কন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম কালা মিয়া (৫০)। তিনি উপজেলার সরমঙ্গল ইউনিয়নের জারলিয়া গ্রামের মৃত এরশাদ মিয়ার ছেলে।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) সন্ধ্যা ছয়টার দিকে জারলিয়া ও সরঙ্গল গ্রামের মধ্যবর্তী হাওরে এ ঘটনাটি ঘটে।

রক্তাক্ত অবস্থায় ধর্ষণের শিকার কিশোরীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হলে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

ভুক্তভোগীর পরিবার সুত্রে জানা যায়, ধর্ষিতার বাবা গ্রামের এক গৃহস্থ ঘরে চাকরি করেন। তার স্ত্রী বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে নিয়ে বাড়ির পাশের হাওর থেকে ধানের খড় সংগ্রহ করছিলেন। সন্ধ্যার দিকে সংগ্রহ করা খড় নিয়ে তিনি বাড়ী আসেন, এ সময় অবশিষ্ট খড়ের পাশে কিশোরী মেয়েকে রেখে আসেন। আসার সময় পাশের জমিতে কাজে থাকা পার্শ্ববর্তী গ্রামের কালা মিয়াকে মেয়েকে দেখে রাখতে বলে আসেন। ফিরে এসে দেখেন মেয়েটি রক্তাক্ত অবস্থায় সেখানে পড়ে আছে। ধর্ষক কালা মিয়া পালিয়ে গেছে। সেখান থেকে তাকে নিয়ে হাসপাতালে আসেন।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রশান্ত তালুকদার জানান, প্রচন্ড রক্তক্ষরণ হচ্ছে, তাই তাকে সিলেটে ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘খবর পেয়েই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অপরাধীকে গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।’