• এপ্রিল ২৬, ২০২৪
  • শিক্ষাঙ্গন
  • 30
ভর্তি পরীক্ষার্থীদের ১৩টি বাস সেবা দিবে শাবিপ্রবি

নিউজ ডেস্ক: আগামী শনিবার (২৭ এপ্রিল) থেকে শুরু হচ্ছে জিএসটি গুচ্ছভুক্ত ২৪টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা। ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষের এ পরীক্ষায় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) কেন্দ্রে অংশ নেবেন ৯ হাজার ২১৩ জন পরীক্ষার্থী। এ ভর্তিচ্ছুদের যাতায়াতের সুবিধার্থে ১৩টি বাস সেবা দিচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবহন দপ্তর।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) বিকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন। তিনি বলেন, ভর্তি পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কেন্দ্রে আসা-যাওয়ার সুবিধার্থে ১৩টি বাস বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। যাতায়াত সমস্যা দূরীকরণে অতিরিক্ত ট্রিপের প্রয়োজন হলে সেটিরও ব্যবস্থা করা হবে জানান তিনি।

পরিবহন দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ১১টি বাস নগরীর কদমতলী, টিলাগড়, ঈদগাহ, লাক্কাতুরা, শিবগঞ্জ, নাইওরপুল, কুমারপাড়া, জেলরোড, নয়াসড়ক পয়েন্ট, চৌহাট্টা, আম্বরখানা, রিকাবীবাজার ও সুবিদবাজার হয়ে ক্যাম্পাসে আসবে । পরে আবার ক্যাম্পাস থেকে দুপুর দেড়টার দিকে একই পথে বাসগুলো ফিরে যাবে।

অন্যদিকে আগামীকাল ২৭ এপ্রিল বিকাল শিফটে আর্কিটেকচার ব্যবহারিক পরীক্ষার্থীদের জন্য দুপুর দেড়টায় ঈদগাহ ও টিলাগড় থেকে ২ টি বাস ছাড়া হবে। যেগুলো বিকালে সাড়ে চারটায় একইপথে ফিরে যাবে।

প্রসঙ্গত, এবারের ভর্তি পরীক্ষায় শাবিপ্রবি কেন্দ্রে ২৭ এপ্রিল ‘এ’ ইউনিটে ৫ হাজার ৮১০ জন, যেটি অনুষ্ঠিত হবে দুপুর ১২টা থেকে ১টার মধ্যে এবং আর্কিটেকচার বিভাগের ব্যবহারিক ড্রয়িং পরীক্ষায় ২৬৫ জন অংশগ্রহণ করবে, যেটি অনুষ্ঠিত হবে বিকাল ৩টা থেকে ৪টার মধ্যে।

এদিকে আগামী ৩ মে ‘বি’ ইউনিটে ২ হাজার ৪০৯ জন ও ১০ মে ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষায় অংশ নেবেন ৭২৯ জন পরীক্ষার্থী। এই দুইটি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে সকাল ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে।

এদিকে ভর্তি কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক ড. আবু সাঈদ আরফিন খান বলেন, অভিভাবকদের গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য হ্যান্ডবল গ্রাউন্ডে ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিশ্রাম ও ওয়াশ রুমের সুবিধার জন্য ক্যাফেটেরিয়া, ইউনিভার্সিটি সেন্টার ও সেন্ট্রাল অডিটোরিয়াম খোলা থাকবে সকাল সাড়ে ৮ থেকে। সকালের নাস্তার জন্য ক্যাফেটেরিয়া সহ ফুড কোর্ট ও স্টাফ ক্যান্টিন খোলা থাকবে সকাল সাড়ে ৮টা থেকে। জরুরী চিকিৎসার জন্য মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে। দুটি এম্বুলেন্স ও সব সময় প্রস্তুত থাকবে।