• মে ২৮, ২০২৪
  • লিড নিউস
  • 12
গিলাফ ছড়ানোর মাধ্যমে শাহজালাল র. মাজারে ওরশ শুরু

নিউজ ডেস্কঃ হযরত শাহজালাল (র.) এর মাজারের ৭০৫তম ওরশে যোগ দিতে বৈরী আবহাওয়াকে উপেক্ষা করে দুর দুরান্ত থেকে ভক্ত অনুরাগীরা এসে জড়ো হয়েছেন সিলেটে। ওরস উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার সকাল থেকে দলে দলে এসে মাজারে গিলাফ দিচ্ছেন। ‘লালে লাল, বাবা শাহজালাল’ স্লোগানে মুখরিত পুরো মাজার এলাকা।

হযরত শাহজালাল (র.) এর মাজারের ৭০৫তম ওরশ আজ মঙ্গলবার সকালে ঐতিহাসিক গিলাফ ছড়ানোর মাধ্যমে ওরস কার্যক্রমের মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু করে শাহজালাল (রহ.) দরগাহ কর্তৃপক্ষ। দুই দিনব্যাপী ওরশকে ঘিরে হজরত শাহজালালের (রহ.) দরগাহ এলাকায় নেওয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। শান্তিপূর্ণভাবে ওরশ সম্পন্ন করতে প্রশাসন এবং মাজার কর্তৃপক্ষ নিয়েছে বিভিন্ন পদক্ষেপ। ওরশের সার্বিক নিরাপত্তায় নেওয়া হয়েছে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা। দরগাহ এলাকায় বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক সিসি ক্যামেরা এবং মাজারের প্রত্যেকটি প্রবেশ দ্বারে বাড়ানো হয়েছে বাড়তি পুলিশি নিরাপত্তা।

জানা যায়, প্রতিবছর আরবি মাসের ১৯ ও ২০ জিলকদ দুই দিনব্যাপী হজরত শাহজালালের (র.) ওরশ অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। মঙ্গলবার দিবাগত রাত থেকে পশু জবাই করার মধ্য দিয়ে ওরসের কার্যক্রম শুরু হবে। মঙ্গলবার সকালে ঐতিহাসিক গিলাফ ছড়ানোর মাধ্যমে ওরস কার্যক্রমের মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু করে শাহজালাল (রহ.) দরগাহ কর্তৃপক্ষ। বুধবার ভোররাতে অনুষ্ঠিত হবে আখেরি মোনাজাত, এরপর শিরনি বিতরণের মাধ্যমে সমাপ্ত হয়ে দুইদিন ব্যাপী এই ওরসের কার্যক্রম।

ওরস উপলক্ষে ভক্ত-আশেকানরা অর্ধশতাধিক গরু ও খাসি এসেছেন নজরানা হিসাবে। সারাদেশ থেকে আসা ভক্ত-আশেকানদের মধ্যে শিরনি বিতরণের জন্য পশুগুলো জবাই করা হয়। এই সময়ে ভক্তরা জিকির ও এবাদত বন্দেগির মাধ্যমে সময় অতিবাহিত করবেন।

উল্লেখ্য, ইসলাম প্রচারের জন্য হযরত শাহজালাল (রহ.) ১৩০৩ খ্রিস্টাব্দে ৩৬০ সফরসঙ্গী নিয়ে সিলেট আসেন। ১৩৪৬ খ্রিস্টাব্দের ১৯ জিলকদ তিনি ইন্তেকাল করেন।