• জুন ২০, ২০২৪
  • জাতীয়
  • 18
পাথরে ঢাকা ২৭৫ বস্তা চোরাই চিনিসহ বাহক গ্রেপ্তার

নিউজ ডেস্ক: চোরাই চিনির ২৭৫টি বস্তা পাথর দিয়ে ঢাকা। দেখলে মনেই হবে না পাথরচাপা দিয়ে রাখা হয়েছে বস্তাগুলো। সিলেটের শাহপারান থানা পুলিশের একটি দল চলতিপথে একটি ট্রাকটিকে ধাওয়া করে অভিনব এ পদ্ধতির চোরাই চিনির পাচার ঠেকিয়েছে।

বুধবার (১৯ জুন) রাতে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ (এসএমপি) সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বুধবার সন্ধ্যায় সিলেটের তামাবিল মহাসড়ক দিয়ে একটি ট্রাক দ্রুত যাচ্ছিল। শাহপরান থানা পুলিশের টহল দল ট্রাকটি থামানোর নির্দেশ দিলেও চালক ট্রাকটি থামায়নি। শেষে ধাওয়া করে ট্রাকটি আটক করা হয়। পরে ট্রাক তল্লাশি করে পাথরের নিচে চাপা দেওয়া অবস্থায় ২৭৫ বস্তা চিনি পাওয়া যায়। চিনিগুলো ভারতীয় এবং চোরাই পথে আনা।

এ সময় ট্রাকের সঙ্গে থাকা মো. রুবেল মিয়াকে (৩৫) আটক করা হয়। রুবেলের বাড়ি হবিগঞ্জের গভরাঙ্গাচর গ্রামে।

এ ঘটনায় করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে রুবেলকে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে গত ১৪ জুন শাহপরান থানা এলাকায় একই কায়দায় পাচারের সময় ২০০ বস্তা চোরাই চিনি জব্দ করা হয়েছিল। একইসঙ্গে ট্রাকের দুই শ্রমিককে গ্রেপ্তার করে হয়। জব্দ চিনির আনুমানিক বাজার মূল্য ১১ লাখ ৭৬ হাজার টাকা।

এই ঘটনার এক সপ্তাহের মধ্যে পাথরচাপা দিয়ে চিনি পাচারের দ্বিতীয় ঘটনা ঘটল।

বুধবারের ঘটনায় শাহপারান থানা সূত্র জানায়, ট্রাকের (ঢাকা মেট্রো-ট-১১-৮৮৫০) ভেতরে কাটা পাথরের তিন ইঞ্চি স্তর দিয়ে নিচে ত্রিপল দিয়ে মোড়ানো ভারতীয় ২৭৫ বস্তা চিনি জব্দ করা হয়। চিনির বস্তায় ইংরেজিতে লেখা MANUFACTURED AT ATHANI SUGAR LIMITED, Maharashtra, India। প্রতি বস্তায় ৪৯ কেজি করে মোট ১৩ হাজার ৪৭৫ কেজি চিনি রয়েছে। বাজারদর অনুযায়ী প্রতি কেজি চিনির মূল্য ১২০ টাকা করে মোট দাম ১৬ লাখ ১৭ হাজার টাকা।

এসএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশানার (এডিসি, মিডিয়া) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম খবরের কাগজকে বলেন, চোরাই চিনির বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযান চলমান থাকায় এ রকম নানা কৌশল অবলম্বন করছে পাচারকারীরা। এ ঘটনায় আটক মো. রুবেল মিয়াকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে তার বিরুদ্ধে শাহপরাণ (রহ.) থানায় মামলা করে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।